রাগ হইয়েন না প্লিজ

আপনাদের জন্যই বলি

রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৮:১৮ অপরাহ্ণ | 209 বার

আপনাদের জন্যই বলি

একটু বড়, প্লিজ পইড়েন, আপনাদের জন্যই লিখছি। কাজে লাগবে ভবিষ্যতে, যদি গুরুত্ব টা অনুধাবন করতে পারেন।

গত কয়দিনে মাল্টা বিক্রি করতে গিয়ে একটা মজার জিনিস খেয়াল করলাম। যেহেতু আমরা মাল্টা হোম ডেলিভারী দেই নাই, তাই মানুষ দূর দুরান্ত থেকে কষ্ট করে মাল্টা নিতে আসছেন। খুবই ভালো সিদ্ধান্ত। হার্ভেস্টিং এর আগে কীটনাশক দেয়া হয় নাই, এমন ফ্রেশ মাল্টা খাওয়ার জন্য তো একটু কষ্ট করতে হবেই। এবং খেলেই বোঝা যায় মাল্টাটা একদম বাড়ির উঠোনের গাছের মত ফ্রেশ।

কিন্তু আমি এখন কিছু প্রশ্ন করবো

** আপনি বছরে কয়দিন মাল্টা খান
** কয়দিন গরুর গোশত খান
** কয়দিন মুরগীর গোশত খান
** কয়দিন মাছ খান
** কয়দিন সবজি খান

যদি সপ্তাহের হিসাব ও ধরি, তাহলেও কিন্তু সপ্তাহের ৭ দিনে ৩ বেলা করে ২১ বেলা গরুর মাংস বা ব্রয়লার মুরগী খাচ্ছেন না।
ফলে সেই গরু,মুরগী, মাছ বা ফল যদি নিরাপদ না ও হয়, তাহলে আপনার ক্ষতি হবে সপ্তাহে এক বেলা, ফলের ক্ষেত্রে বছরে কয়েকদিন। কিন্তু আপনার ভাত, রুটি, তেল মসলা মাসের ৩০ দিনে ৯০ বেলা নিরাপদ হওয়া দরকার। তাই নয় কি ?

আপনি কি এক বেলা ভাত/রুটি, বা তরকারি তেল/মসলা ছাড়া খেয়েছেন ? সেটা তরকারি, ডিম ভাজি হোক বা গরুর গোশত হোক। ফলে, এই চাল, আটা, তেল – মসলার মাধ্যমে আপনার স্লো পয়জনিং এর বিষয়টা একবার চোখ বন্ধ করে চিন্তা কইরেন।

আপনারা ফরমালিন মুক্ত ফল খুঁজেন, কিন্তু মজার ব্যাপার হইলো, ফরমালিন কাজই করে প্রোটিন এ। তাই, ফলে ফরমালিন ব্যবহারের সুযোগ কই ?! যেটা হয়, সেটা হলো হার্ভেস্টিং এর আগে কীটনাশক ব্যবহার।

এখন আপনারা দেশি মুরগীর ডিম, নদীর মাছ, দেশী গরুর দুধ, আম, মাল্টা, এইসব খাওয়ার জন্য মাইলের পর মাইল কষ্ট করে যেতে পারবেন কিন্তু আপনার চাল, আটা, তেল মসলার জন্য আপনার কোনো বাড়তি সাবধানতাই নাই ! 😭

মার্শাল আর্টে একটা কথা আছে, “আমি প্রতিপক্ষের সেই ১০০০ কৌশল নিয়ে ভয় পাই না, যেটা সে ১ বার করে অনুশীলন করেছে। বরং, আমি তার সেই ১ টা কৌশল কে ভয় পাই, যেটা সে ১০০০ বার রপ্ত করেছে।

আমি কোনোভাবেই আপনাকে অনিরাপদ মুরগী, গরু, দুধ, ডিম, মাছ বা ফলে খেতে বলছি না। তবে, সেটা আপনি কয়বার খান, সেই হিসাব করতে বলছি, এবং সেই মাছ মাংস আপনি যে ভাত /রুটি দিয়ে খান বা যেই তেল মসলা দিয়ে রান্না করেন, সেটা নিয়েই ভাবতে বলছি।

বলে না, সাত মন দুধের মধ্যে এক ফোটা গরুর পেশাব পড়লে, সেটা খাওয়া যায় না।

ফলে, আপনি টাঙ্গুয়ার হাওড় থেকে মাছ এনে, লেড অক্সাইড মেশানো মসলা দিয়ে রান্না করে, চায়নীজ এমোনিয়া গ্যাস ট্যাবলেট দিয়ে সংরক্ষিত চালের ভাত দিয়ে নৈশভোজ করে, কতটা স্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে পারলেন,সেটা আপনিই চিন্তা করে দেখেন !

আপনারা শহরের শিক্ষিত জনগন অনেক বেশী স্বাস্থ্য সচেতন, হাওড়ে মাছ কিনেন কিন্তু সকাল বিকাল গ্যাস্ট্রিক এর ট্যাবলেট খান। এখনো গ্রামে হাট থেকে মানুষ চাষের পাঙ্গাশ কিনে খায় (দাম কম আর সপ্তাহে হয়তো একদিন খায়), কিন্তু তেল, মসলা, আটা আর চাল টা নিজেরা ভাঙ্গায়। তাদের অবশ্য গ্যাসের ট্যাবলেট খুব বেশী কিনতে হয় না।

আপনারা মোটা চালের চামড়া ছিলে, সেই চিকন চালের ভাত খাচ্ছেন, আবার চালের চামড়া দিয়ে বানানো তেল অনেক দাম দিয়ে কিনে খাচ্ছেন। গ্রামের গরীব মানুষেরা আপনাদের থেকে চালাক। তারা মোটা চালের ভাত খাচ্ছে যাতে চাল,চালের চামড়া এবং সেই চামড়ার তেল সবই পাচ্ছে। সাথে তরকারি রান্নায় সরিষা ব্যবহার করছে, ফলে অল্প পয়সায় বেশী জিনিস খাচ্ছে।

আর মজার ব্যাপার কি জানেন, সীসা একটা মজার জিনিস, এর লবনের রঙ গুলি না একদম হলুদ মরিচ এর মত, শুধু মিটফোর্ড থেকে একটু পারফিউম নিয়ে আসলেই হয়। আর লেড অক্সাইডের সুবিধা আছে, রঙ চেঞ্জ হয় না অনেকদিন থাকলেও। কিন্তু আপনার বাসায় ভাঙ্গানো মরিচ বেশীদিন বাসায় রাখলে রঙ নষ্ট হয়ে যায়।

দিনের পর দিন লেড অক্সাইড মিশ্রিত মসলা এবং এমোনিয়া ফসফাইড গ্যাসে সংরক্ষিত চাল খাওয়ার কি ফলাফল হতে পারে একটু গুগল নেড়েচেড়ে দেখে নিয়েন বা অভিজ্ঞ পুষ্টিবিদের সাথে কথা বলে দেইখেন।

নিখাদ প্রকৃতি
মাইজদী, নোয়াখালী
০১৭১১ ৯৮১৬৮৬

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

কৃষি মন্ত্রনালয়ে ১১-২০তম গ্রেডে বিভিন্ন পদে নিয়োগ
শম্ভুগঞ্জ এর মোমেনশাহী এটিআই এ প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পূনর্মিলনী অনুষ্ঠিত
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ১০৮১ জন নিয়োগ
ব্রি ধান ৮৯ জাত পরিচিতি ও চাষাবাদ ব্যবস্থাপনা
কৃষি মন্ত্রনালয়ে ১১-২০তম গ্রেডে বিভিন্ন পদে নিয়োগ
শম্ভুগঞ্জ এর মোমেনশাহী এটিআই এ প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পূনর্মিলনী অনুষ্ঠিত
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ১০৮১ জন নিয়োগ
সবজি চাষে ভাগ্য বদলে গেছে হাটখোলার কৃষকদের

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com