উৎপাদন প্রযুক্তি : হাইব্রিড পেঁপে

রবিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ | ৮:২৩ অপরাহ্ণ | 5121 বার

উৎপাদন প্রযুক্তি : হাইব্রিড পেঁপে
পেঁপে চাষ

হাইব্রিড জাতের পেঁপেঃ টপ লেডি, রেড লেডি
চারা উৎপাদন পদ্ধতিঃ পেঁপের বীজগুলো ১ ঘন্টা রোদে শুকিয়ে ঠান্ডা করে নিতে হবে। তারপর ২৪ ঘন্টা ভিজানোর পর পানি ফেলে দিয়ে বীজগুলো ছাই মেখে ২ ভাগ মাটি ও ১ ভাগ শুকনো গোবর মিশিয়ে মাটিতে বীজগুলো বুনতে হবে। লক্ষ্য রাখতে হবে যে, বীজগুলো যেন মাটির বেশি নিচে না যায়। আধা ইঞ্চির একটু কম মাটির নিচে বুনতে হবে। তারপর খরমড়/ধানের কুড়া দিয়ে বীজতলা ঢেকে দিতে হবে। মাটি যদি বেশি শুকিয়ে যায় তবে ঝর্ণা দিয়ে পানি দিতে হবে। লক্ষ্য রাখতে হবে পানি যেন বেশি পরিমাণে দেয়া না হয়। এভাবে ১০/১২ দিন পর থেকে চারা বের হওয়া শুরু হবে। এমতাবস্থায় খড়গুলো সরিয়ে দিতে হবে এবং চারার গোড়ার মাটি ছুচিয়ে দিতে হবে যাতে রোদে শুকাতে পারে। শীতের সময় চারা বের হতে ২০/২৫ দিন সময় লাগতে পারে।

বীজের পরিমাণঃ একর প্রতি ৫০ গ্রাম।
বীজ বপনঃ সারা বছর। পলি ব্যাগে বীজ বপন করে চারা উৎপাদন করা উত্তম।

চারার বয়সঃ ৩০-৪০ দিন বয়সের চারা রোপন করতে হয়। তবে শীতকালে ৫০-৫৫ দিন বয়সের চারা রোপনেও ভালো ফলন পাওয়া যায়।

জমি তৈরিঃ চাষ ও মই দিয়ে ভালোভাবে জমি তৈরি করতে হবে। শেষ চাষের সময় প্রতি শতাংশে ৪০০ গ্রাম জিপসাম, ৪০ গ্রাম জিংক সালফেট ও ৪০ গ্রাম বোরাক্স সার ছিটিয়ে প্রয়োগ করতে হবে।

মাদা তৈরিঃ ৬ ফুট x ৬ ফুট দূরত্বে মাদা তৈরি করে প্রতি মাদায় ১ টি চারা রোপন করতে হবে।

সার উপরি প্রয়োগঃ
প্রথমবারঃ– চারা রোপনের ২০ দিন পর প্রতি শতাংশে ১০০ গ্রাম ইউরিয়া ও ১০০ গ্রাম পটাশ সার গাছের চারপাশে প্রয়োগ করতে হবে।

দ্বিতীয়বারঃ– চারা রোপনের ৪৫ দিন পর প্রতি শতাংশে ৫০০ গ্রাম ইউরিয়া ও ৫০০ গ্রাম পটাশ সার প্রয়োগ করতে হবে।

তৃতীয়বারঃ– চারা রোপনের ৭৫ দিন পর প্রতি শতাংশে ৫০০ গ্রাম ইউরিয়া ও ৫০০ গ্রাম পটাশ সার প্রয়োগ করতে হবে।
তারপর প্রতি ৪৫ দিন পর পর প্রতি শতাংশে ৫০০ গ্রাম ইউরিয়া ও ৫০০ গ্রাম টিএসপি সার প্রয়োগ করে যেতে হবে।

পানি সেচ ও নিষ্কাশনঃ পেঁপে বাগানে প্রয়োজনে নিয়মিত পানি সেচ দিতে হবে আবার বৃষ্টির সময় খেয়াল রাখতে হবে যাতে বৃষ্টির পানি তাড়াতাড়ি বের হয়ে যায়।
খুঁটি বা ঠেস দেওয়াঃ ঝড় বা বাতাসে যাতে গাছ পড়ে না যায় সেজন্য খুঁটি বা ঠেস দিতে হবে।

ফল সংগ্রহঃ চারা রোপনের ৪ মাস পর থেকে কাঁচা পেঁপে এবং ৬ মাস পর থেকে পাকা পেঁপে সংগ্রহ করা যায়।
পাকা পেঁপে সংগ্রহের ক্ষেত্রে পুরোপুরি পাকার পূর্বেই অর্থাৎ চামড়া কিঞ্চিৎ হলুদ হলেই পেঁপে সংগ্রহ করা উচিত।

সতর্কতাঃ হাইব্রিড জাতের বীজ থেকে উৎপাদিত ফসলের দানা কখনোই বীজ হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না।

সংগ্রহেঃ এ. কে. আজাদ ফাহিম
[তথ্যসূত্রঃ লিফলেট- সুপ্রীম সীড]

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

উপসহকারী কৃষি অফিসার দম্পতি সহ ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট কৃষি অফিসে আবার ৪জন করোনায় আক্রান্ত

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com