একটি শিক্ষণীয় বাস্তব গল্প

শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | ১১:০২ পূর্বাহ্ণ | 1036 বার

একটি শিক্ষণীয় বাস্তব গল্প

স্কটল্যান্ডের এক গরীব কৃষক। তার নাম ফ্লেমিং। একদিন তিনি জমিতে কাজ করছিলেন। হঠাৎ কাছের পুকুর থেকে চিৎকার ভেসে এলো, বাঁচাও। বাঁ-চা-ও! তিনি কাজ ফেলে ছুটে গেলেন। সেখানে একটি ছোট ছেলে পানিতে হাবুডুবু খাচ্ছে। পানিতে হাত নাড়ছে আর আতঙ্কে চিৎকার করছে, কৃষক ফ্লেমিং ছেলেটাকে উদ্ধার করলেন। নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে ছেলেটা রেহাই পেল।

পরদিন সকালে একটা চমৎকার গাড়ি এসে থামল কৃষকের বাড়ির সামনে। মার্জিত পোশাক পরা এক ভদ্রলোক গাড়ি থেকে নেমে এলেন। কৃষক ফ্লেমিং যে ছেলেটিকে বাঁচিয়েছেন, ভদ্রলোক নিজেকে সেই ছেলেটির বাবা হিসেবে পরিচয় দিলেন।
‘ আমি আপনাকে প্রতিদান দিতে চাই। আপনি আমার ছেলের জীবণ বাঁচিয়েছেন।’ ভদ্রলোক বললেন।

‘ না, আমি যা করেছি তার প্রতিদান নিতে পারব না। ক্ষমা করবেন।’ জবাব দিলেন সেই কৃষক। এমন সময় ঘর থেকে বেরিয়ে এলো তার ছেলে।
‘ এটা কি আপনার ছেলে?’ ভদ্রলোক জানতে চাইলেন।
কৃষক গর্বের সঙ্গে জবাব দিলেন, ‘ হ্যাঁ, এ আমার ছেলে।’

‘ আমি আপনাকে একটি প্রস্তাব দিতে চাই। আমার ছেলের মতো আপনার ছেলেকেও পড়ালেখা করানোর সুযোগ আমায় দিন। যদি আপনার সামান্য গুণও ওর মধ্যে থাকে তাহলে নিশ্চয় একদিন এমন বড় মানুষ হবে আমরা সবাই তাকে নিয়ে গর্ব করব।’

বাস্তবে সেটিই হল। কৃষক ফ্লেমিংয়ের ছেলেকে ভর্তি করানো হল সেরা স্কুলে। যথাসময়ে সেই ছেলেটি স্নাতক পাস করলেন লন্ডনের সেন্ট মরিস হসপিটাল মেডিকেল স্কুল থেকে। আর পেনিসিলিন আবিষ্কার করে সারা দুনিয়ায় তিনি পরিচিতি লাভ করলেন স্যার আলেকজান্ডার ফ্লেমিং হিসেবে। জীবাণুনাশক পেনিসিলিন আবিষ্কার ছিল চিকিৎসা জগতের জন্য এক নতুন দিগন্তের সন্ধান। এর স্বীকৃতি স্বরুপ ১৯৪৫ সালে চিকিৎসা বিজ্ঞানে তিনি নোবেল পুরস্কার লাভ করেন।

যে ভদ্রলোক স্যার আলেকজান্ডার ফ্লেমিংয়ের লেখাপড়ার দায়িত্ব নিয়েছিলেন সেই ভদ্রলোকের নাম রানডলফ চার্চিল। আর তার ছেলের নাম উইনস্টন চার্চিল।
স্যার উইনস্টন চার্চিল ইংল্যান্ডের (১৯৪০-১৯৪৫ এবং ১৯৫১-১৯৫৫) দু’মেয়াদে সফল প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। একজন খ্যাতিমান লেখক ছিলেন যিনি চল্লিশটির অধিক বই রচনা করেছেন। ১৯৫৩ সালে ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার অর্জন করেন।

নীতিকথা : ভালো কাজের ফল অবশ্যই ভালো হয়।

সংগ্রহেঃ শাহ পারভেজ

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com