কেউ কেউ বলে থাকেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা মাঠে কাজ করে না

শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০ | ১১:৩৬ অপরাহ্ণ | 165 বার

কেউ কেউ বলে থাকেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা মাঠে কাজ করে না

কৃষি বিভাগে কর্মরত মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের কাজের ব্যাপারে কোন কোন মহল বা ব্যক্তির নেতিবাচক মনোভাব ও মন্তব্য আমাদের আশাহত করে। কেউ কেউ বলে থাকেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা মাঠে কাজ করে না।

মাঠ পর্যায়ে কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা কাজ না করলে ফসলের এত নতুন নতুন জাত কৃষকের কাছে কিভাবে গেল? আধুনিক লাগসই প্রযুক্তিগুলো কৃষকের কাছে পৌঁছে দিল কে?

প্রতিবছর কৃষি জমি ১% হারে কমতে থাকা এবং ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার খাদ্য চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে কৃষি পণ্য রপ্তানি করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন, সারা বিশ্বে বাংলাদেশ সবজি উৎপাদনে তৃতীয়, ধান উৎপাদনে চতুর্থ, আম উৎপাদনে সপ্তম, আলু উৎপাদনে অষ্টম কিভাবে সম্ভব হলো?

কৃষির এই অপ্রতিরোধ্য অগ্রগতি কাদের অবদান?

সরকারের নানা পদক্ষেপ ও সঠিক নির্দেশনা মাঠ পর্যায়ে কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাদের সফল বাস্তবায়নের ফলে বাংলাদেশ আজ কৃষিতে সফল একটি দেশ। কৃষি বিভাগের সকল স্তরের কর্মকর্তাদের নিরলস পরিশ্রমের ফলে কৃষি এখন বানিজ্যিক কৃষিতে পরিণত হয়েছে। এর ফলে খাদ্যশস্য উৎপাদনে বিশ্বে এ দেশের অবস্থান দশম। কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাদের পরিশ্রমের ফলে দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে এটি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা অনুধাবন করেই মাঠ পর্যায়ে কর্মরত কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা ডিপ্লোমা কৃষিবিদদের মূল্যায়ন করেছেন এবং গ্রেড উন্নীত করে সম্মানিত করেছেন।

তবে দুঃখজনক হলেও সত্য কোন বিভাগ বা দপ্তরের সকল কর্মকর্তারাই শতভাগ কাজ করেন না। ঠিক তেমনিভাবে আমাদের কৃষি বিভাগেও সকল কর্মকর্তারাই শতভাগ কাজ করেন না, কেউ বেশি কাজ করেন আবার কেউ একটু কম করেন। আমাদের কৃষি বিভাগের এমন অনেক কর্মকর্তা আছেন সরকারি বন্ধের দিনও কৃষকদের সেবায় নিঃস্বার্থভাবে মাঠে কাজ করেন।

কৃষকদের কৃষি সেবা পেতে কর্মকর্তার কাছে ছুটে যেতে হয় না, কৃষি বিভাগের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা কৃষকদের দোরগোড়ায় গিয়ে কৃষকদের খুঁজে বের করে নিঃস্বার্থভাবে সেবা দিয়ে থাকেন। এই নজির অন্য কোন বিভাগ বা দপ্তরে আছে কিনা আমার জানা নাই। তাই আমি মনে করি কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাদের কাজ নিয়ে যারা নেতিবাচক মন্তব্য করেন এটি তাদের হিংসার বহিঃপ্রকাশ নতুবা কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাদের কাজের পরিধি সম্মন্ধে অজ্ঞতার কারণেই তারা নেতিবাচক মন্তব্য করেন। ধন্যবাদ সবাইকে।

লেখকঃ

নোমান আহমেদ, উপসহকারী কৃষি অফিসার, জৈন্তাপুর, সিলেট

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com