কোলকাতায় ইলিশ কেটে বিক্রি হয় : হাসাহাসি চলছে ফেইসবুকে

বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১:০৮ পূর্বাহ্ণ | 202 বার

কোলকাতায় ইলিশ কেটে বিক্রি হয় : হাসাহাসি চলছে ফেইসবুকে

কোলকাতায় ইলিশ কেটে বিক্রি হয়। এটা নিয়ে হাসাহাসি চলছে ফেইসবুকে। যারা হাসছে তারা সবাই কম বেশি ইলিশ আস্ত কিনে খাওয়া লোকজন। তারা জানে না বাংলাদেশের কতজন ইলিশ কিনে খেতে পারছে।

যদি কোলকাতার মত কেটে পিস পিস করে মাছ বিক্রি হত তাহলে আমাদের আশেপাশের স্বল্প আয়ের লোকজনগুলি একবেলা ইলিশ চেঁখে দেখতে পারত। কত মধ্যবিত্ত ইলিশ খেতে পারে না সে খবর কি আর রাখি!

যদি গাদা পেটি মাথা আলাদা করে বিক্রি হত তাহলে দশ হাজার টাকা বেতনে ফ্যাক্টরিতে চাকরি করা লোকটা তার বাচ্চার পাতে একটু ইলিশ দিতে পারত। বাংলাদেশে এক পিস আপেল কেনা আর ভিক্ষা করা সমতুল্য। অথচ মধ্যবিত্ত এক পিস আনার দুটো আপেল কিনতে পারলে স্বস্তি পেতো। বাংলাদেশের দোকানীর কাছে এরকম ক্রেতা স্রেফ মিসকিন!

ভারতে কিন্তু এভাবে সবাই কিনে খায়। এমনকি ধনী দেশের লোকজনও চার পিস আপেল কিনে চাহিদা অনুযায়ী।

কলকাতায় ২৫০ গ্রাম মুরগীর মাংস বা ২ পিচ মাছ কেনা যায়! বেশি কিনলে নষ্ট। এটা অপচয় রোধ করে। এটা কিপ্টামী না। বাসি পঁচা খাওয়া থেকে ও এ পদ্ধতি অনেক উপকারী। কলকাতায় এক পিছ মিষ্টির ও সুন্দর কাগজের প্যাকেট আছে। ওখানে যার যতটুকু প্রয়োজন সে ততোটা নিতে পারে। এ সুবিধা খুবই ভালো।

সভ্য সমাজ প্রয়োজের অতিরিক্ত কেনে না। ইউরোপ আমেরিকার জনগন একটি চকলেটবার নিয়ে বন্ধুর বাসায় যায়। বন্ধু এককাপ কফিতে আপ্যায়িত করে। আমাদের মত ৩ কেজি মিষ্টি নিয়ে হাজির হয়না আত্মীয় পরিজনের বাসায়। যার অনেকটাই গার্বেজে ঠিকানা হয়।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com