প্লাস্টিকের বোতলে পানির পরিবর্তে বিষ খাচ্ছেন না তো?

রবিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ | ১২:৪২ অপরাহ্ণ | 1019 বার

প্লাস্টিকের বোতলে পানির পরিবর্তে বিষ খাচ্ছেন না তো?

মোঃ গোলাম রায়হান (হাদী)

আমরা আমাদের দৈনন্দিন বিভিন্ন কাজে প্লাস্টিকের তৈরি নানা দ্রব্যাদি ব্যবহার করে থাকি।
পানি,জুস,সফট ড্রিংক্স,দুধ ইত্যাদি পান করার জন্য প্লাস্টিকের বোতল,ওয়াটার পট,গ্লাস,জগ,মগ হরহামেশাই ব্যবহার করি আমরা।

রান্নাবান্না থেকে ঘর সাজানো সব কাজেই আমরা এখন এই প্লাস্টিক সামগ্রীর শরণাপন্ন হই কারন এটি দামে সস্তা ও টেকসই কিন্তু আমরা কি কখনো ভেবে দেখেছি আমাদের নিত্যদিনে ব্যবহার্য এসব প্লাস্টিক স্বাস্থ্যের জন্য কতটুকু নিরাপদ?

আপনারা হয়তো অনেকেই লক্ষ্য করেছেন,সকল প্লাস্টিকের তৈরি বোতল,জার,মগ,গ্লাস,জগ ইত্যাদির নিচের দিকে বা পাশে ইংরেজিতে কিছু লেখা থাকে।ঐ সকল লেখার মাঝে রিসাইকল চিহ্নের ভেতর 1 বা 2 লেখা থাকে ও এর ঠিক নিচেই PET বা HDPE লেখা থাকে (ছবিতে যেমনটি দেখতে পাচ্ছেন)।
এগুলোকে “প্লাস্টিক রিসাইকল কোড” বলে যা আন্তর্জাতিক ভাবে স্বীকৃত।

আজকে ঠিক এ বিষয়টি নিয়েই আপনাদের সাথে আলোচনা করবো-রিসাইকল চিহ্নের ভেতর এসব লেখাগুলোর মানে কি এবং কোন প্লাস্টিক আমাদের ও আমাদের পরিবারের জন্য নিরাপদ।

যদি রিসাইকল চিহ্নের ভেতর 1 ও চিহ্নের নিচে PET বা PETE লেখা থাকে তবেঃ
#1-PET (Polyethylene Terephthalate): এ ধরনের প্লাস্টিক সাধারনত স্বচ্ছ ও শক্ত প্রকৃতির হয়ে থাকে,পাশাপাশি গ্যাস এবং আর্দ্রতা রোধকও হয়ে থাকে।

এ ধরনের প্লাস্টিকে তৈরিকৃত সামগ্রীঃ
* কোমল পানীয়,পানি এবং ড্রেসিং
বোতল,
* চিনাবাদাম, মাখন এবং জ্যাম জার,
* অল্প কিছু ইলেকট্রনিক্স পন্য তৈরিতেও ব্যবহৃত হয়।

ব্যবহার বিধিঃ এটি একাধিক বার ব্যবহার করা যায় তবে অধিক ব্যবহার না করাই উত্তম।

যদি রিসাইকল চিহ্নের ভেতর 2 ও চিহ্নের নিচে HDPE লেখা থাকে তবেঃ
#2-HDPE (High-Density Polyethylene): এ ধরনের প্লাস্টিক শক্তপোক্ত, আর্দ্রতা ও গ্যাস প্রতিরোধক হয়ে থাকে।

এ ধরনের প্লাস্টিকে তৈরিকৃত সামগ্রীঃ
* গ্যালন,
* দুধ,জুস এবং পানির বোতল,
* ওয়াটার পাইপ,
* হুপ রিং,
* মুদি ব্যাগ,
* শ্যাম্পু/স্যানিটারি বোতল ইত্যাদি।

ব্যবহার বিধিঃ যে ৩ টি কোডের প্লাস্টিক অপেক্ষাকৃত অধিক নিরাপদ তার মাঝে এটি একটি। এটি অনেক বার ব্যবহার করা যায়।

যদি রিসাইকল চিহ্নের ভেতর 3 ও চিহ্নের নিচে PVC লেখা থাকে তবেঃ
#3-PVC (Polyvinyl Chloride): এ ধরনের প্লাস্টিক নরম ও ফ্রেক্সিবল ধরনের হয়ে থাকে।

এ ধরনের প্লাস্টিকে তৈরিকৃত সামগ্রীঃ
* স্বচ্ছ,কোমল ও ফোস্কা/গুটি গুটি যে প্যাকেজিং সামগ্রী আমরা দেখে থাকি তা এ প্লাস্টিকে তৈরি,
* বাচ্চাদের খেলনা,
* কম্পিউটার কেবল,
* পাইপ ও প্লাম্বার ফিটিংস ইত্যাদি।

ব্যবহার বিধিঃ খাদ্যদ্রব্যে এ ধরনের প্লাস্টিক ব্যবহার করা উচিত নয় কেননা এটিতে বিদ্যমান উপাদানসমূহ খাদ্যে বিষক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে।

যদি রিসাইকল চিহ্নের ভেতর 4 ও চিহ্নের নিচে LDEP লেখা থাকে তবেঃ

#4-LDPE (Low-Density Polyethylene): এটি একই সাথে প্রক্রিয়াকরন করা যায়,শক্তপুক্ত অথচ নমনীয় ও আর্দ্রতারোধক।

এ ধরনের প্লাস্টিকে তৈরিকৃত সামগ্রীঃ
* হিমায়িত খাদ্যদ্রব্যের ব্যাগ,
* সঙ্কুচিত বোতল,
* নমনীয় ধারক,
* গ্রোসারি ব্যাগ ইত্যাদি

ব্যবহার বিধিঃ যে ৩ টি কোডের প্লাস্টিক অপেক্ষাকৃত অধিক নিরাপদ তার মাঝে এটিও একটি। বহু বার ব্যবহার করা যায়।

যদি রিসাইকল চিহ্নের ভেতর 5 ও চিহ্নের নিচে PP লেখা থাকে তবেঃ
#5-PP (Polypropylene): এটি হালকা অথচ মজবুত হয়ে থাকে। একই সাথে তাপ প্রতিরোধী ও রাসায়নিক,
গ্রীস,তেল ও আর্দ্রতারোধকও।

এ ধরনের প্লাস্টিকে তৈরিকৃত সামগ্রীঃ
* আপনি সিরিয়াল খাদ্যদ্রব্যের কৌটা বা প্যাকেটের ভেতর যে পাতলা পর্দা ছিড়ে ফেলেন তা এই প্লাস্টিক দিয়েই তৈরি!
* বাসনপত্র,
* মার্জারিন টিউব,
* ফুড কন্টেইনার,
* ডিসপোজেবল কাপ,
* কোমল পানীয় বোতলের ক্যাপ,
* প্লেট ইত্যাদি।

ব্যবহার বিধিঃ প্লাস্টিক রিসাইকল কোড নং 2 ও 4 এর মতই

যদি রিসাইকল চিহ্নের ভেতর 6 ও চিহ্নের নিচে PS লেখা থাকে তবেঃ
#6 – PS (Polystyrene):
এটি দামে সস্তা, হালকা পাতলা ও একে সহজেই নানা আকৃতি দেয়া যায়।

এ ধরনের প্লাস্টিকে তৈরিকৃত সামগ্রীঃ
* ডিমের বাক্স,
* চিনাবাদাম প্যাকিং,
* ডিসপোজেবল কাপ,প্লেট,ট্রে ইত্যাদি।

ব্যবহার বিধিঃ এই প্লাস্টিক বর্জন করাই সর্বোত্তম।

যদি রিসাইকল চিহ্নের ভেতর 7 ও চিহ্নের নিচে লেখা থাকে তবেঃ
#7-Other (BPA,Polycarbonate and LEXAN): এটির বৈশিষ্ট্য নির্ভর করে পলিমার বা পলিমারসমূহের সমন্বয়ের উপর।

এ রকমের প্লাস্টিকে তৈরিকৃত সামগ্রীঃ
* পানীয় বোতল,
* কম্প্যাক্ট ডিস্ক,
* ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতি,
* সানগ্লাস,
* প্রেসক্রিপশন চশমা,
* অটোমেটেড হেডল্যাম্প,
* যান্ত্রিক প্যানেলসহ লেন্স ইত্যাদি।

ব্যবহার বিধিঃ এই প্লাস্টিকও পরিহার করা উচিত।

পরিশেষে বলতে গেলে,খাদ্যদ্রব্যে যত কম প্লাস্টিকের জিনিসপত্র ব্যবহার করা যায় ততোই উত্তম।
একান্ত যদি ব্যবহার করতেই হয় তবে প্লাস্টিক রিসাইকল কোড নং – 2,4 ও 5 নং সমূহ ব্যবহার করাটাই সব থেকে ভাল হবে।তবে বুদ্ধিমানের কাজ হবে কোন প্লাস্টিক সামগ্রীই দীর্ঘদিন ব্যবহার না করা।

[তথ্যসূত্রঃ উইকিপিডিয়া, বডি আনবারডেন্ড, অ্যাকশন কার্টিং, নেচারাল সোসাইটি, আর্থ ইজি, ইন্টারনেট ইত্যাদি]

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

কৃষি মন্ত্রনালয়ে ১১-২০তম গ্রেডে বিভিন্ন পদে নিয়োগ
শম্ভুগঞ্জ এর মোমেনশাহী এটিআই এ প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পূনর্মিলনী অনুষ্ঠিত
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ১০৮১ জন নিয়োগ
সারাবছর চাষযোগ্য পেঁয়াজ বারি-৫, ফলন তিনগুন বেশি

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com