মো. তাজউদ্দিন সম্রাট’র একগুচ্ছ ছড়া-কবিতা

বৃহস্পতিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৮ | ৪:৫৭ পূর্বাহ্ণ | 1086 বার

মো. তাজউদ্দিন সম্রাট’র একগুচ্ছ ছড়া-কবিতা
মো. তাজউদ্দিন সম্রাট

১. কালান্তরের কালিপোনা

এই পৃথিবী হুট করে
দেখবে একদিন লুট করে
নিচ্ছে ওরা ঠিক,
কুয়োর জলে স্নান করে
মুখটা পানে লাল করে
ছুঁড়ছে গায়ে পিক।

দাদার দুরুদ পাঠ করে
মাঞ্জায় কোমর ঘাঁট করে
দাপিয়ে বেড়ায় দিক,
কালান্তরের কালিপোনা
মানুষরূপি হাতে গোনা
যায় না চেনা ঠিক।

তাদের মাঝেই বাঁচতে হবে
ময়লা-ধূলো কাচতে হবে
দু’হাত দিয়ে কষে,
এই সমাজে আছে যত
অনিয়মের দেদার ক্ষত
তুলতে হবে ঘষে।

এই সমাজের বন্দিখাঁচায়
জীবন যাদের মরণ-বাঁচায়
বাঁচবে তারাও ঠিক,
যেদিন তারা কালের মেঘে
হানবে আঘাত তপ্তবেগে
মারবে দিগ্বিদিক।

২. দুঃখিনী মেয়ে

ও চামেলি আয় না কাছে দেখ না রে তুই দেখ
তোরে ছাড়া জমলো বুকে সাত আসমানের মেঘ।
কেমন করে ভুললি রে তুই ভালোবাসার দিন?
কে মেটাবে বল না রে ঐ ন’টি মাসের ঋন!

ভাই যে গেলো আনতে তোকে ফিরলো না আর ঘরে,
বাবাও ফের চলে গেলো তোর খোঁজেতে পরে।
অশ্রুতে মা বুক ভাসালো তাদের পথ চেয়ে,
তাদের মায়া ছাড়লো শেষে সেই দুঃখিনী মেয়ে।

সবুজ ঘাসের শিশির হয়ে আসলিরে তুই ফিরে,
দুখের মাঝেও সুখের হাসি নামলো তোকে ঘিরে।
ছেলে হারার দুঃখ ভোলে তোকে কাছে পেয়ে,
একাত্তরে ঘর হারানো সেই দুঃখিনী মেয়ে।

আজকে তবে ঝরছে কেন কাজল চোখে জল?
আঁচল বেয়ে নামছে কেন নোনা জলের ঢল?
ও চামেলি বলনা একি আত্মত্যাগের ফল?রক্তঝরা দিনগুলি ক্যান যাচ্ছে রে বিফল?

৩. ঘেঁর

আর কত রে খলখলাবি
কলকলাবি ফের?
বোয়াল হয়ে খাবি গিলে
চুনোপুঁটি ঢের?

আর কত দিন রাখবি ঢেকে
শাকের তলায় মাছ?
মানুষ হয়ে দু একটা দিন
ধরার বুকে বাঁচ।

পুরিয়ে যাবে সোনার কাঠি
রুপোর কাঠি তাও
বুঝবি সেদিন জুলুম করে
লাভ হলো না। ফাও!

সময় সে তো পার হয়ে যায়
ধর না দৌড়ে ট্রেন
সত্য-ন্যায়ের বিবেক দিয়ে
সাফ করে নে ব্রেণ।

মানুষ না হয় সহজ সরল
অবুঝ ভাবিস ক্যান?
মাথায় কেবল সোনার এদেশ
লুটে নেয়ার ধ্যান!

সব তো খেলি একে একে
মিটলো না লোভ তোর
থাকলো বাকি চিরদিনের
সিংহাসনের ঘোর।

সিংহাসনটা খাবি যেদিন
সেদিন পাবি টের
গলার মধ্যে বিধঁবে রে তোর
জোর-জুলুমের ঘের।

২৯/০৭/১৮: রবিবার

৪. আমজনতার ভোট

দেশটা আবার ভাগ হলো কি?
পারছি না তো বুঝতে!
এবার ভাগের শর্তটা কী
কেউ এলে না খুঁজতে?

ভাষাও না! ধর্মও না!
তবু ভাগের কারন কী?
বলছো না কেউ তোমরা আমায়
বলায় আছে বারণ কি?

ঢের বুঝেছি, অবুঝ আমি
তাই তো আছি চুপ যে,
তোমরা যারা সবই বোঝ
ধরছো নানা রূপ যে!

ফের যদি হয় ভাগা-ভাগি
আমি রবো কোন পক্ষে?
ধর্ম-ভাষা সবই তো এক
থাকবো তবে কোন বক্ষে?

ব্যাপারটা বেশ জটিলরে ভাই
হালকা নয়তো মোটে!
পক্ষ আমার ঠিক হওয়া চাই
আমজনতার ভোটে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com