মো. তাজ উদ্দিন সম্রাট এর একগুচ্ছ কিশোর কবিতা

বৃহস্পতিবার, ২২ মার্চ ২০১৮ | ১১:১০ অপরাহ্ণ | 1319 বার

মো. তাজ উদ্দিন সম্রাট এর একগুচ্ছ কিশোর কবিতা
মো. তাজ উদ্দিন সম্রাট

১. সবুজের দ্রোহ

ধূলোময় শহর আর ধোঁয়াশার ভূবন
মানুষের কোলাহলে হারিয়েছে ভূ বন।
কেটেকুটে সাফ হলো পাখিদের ঘর
পর কে করিতে আপন নিজে হল পর।
বায়ুতে নিয়নের স্নেহ রবি বড় রাগ
চন্দ্রীমা রাত হারায় নিজ অনুরাগ।
মনভার করে আছে ফুলেদের রাণী
মধুকর এলো না কাঁদে অভিমানী।

জননী ভুলেছে তার মমতার স্নেহ
সবুজ হয়েছে লাল বসুধার দেহ।
জলহীন নদী তার মরুময় তান
অকালে হারালো যার ঢেউ কলতান।
স্বার্থ গুটাতে যে জন প্রেমে করে হেলা
অবেলায় পুরায় সে জীবনের খেলা।

২. প্রজাপতি

ও চপলা নাম কিগো তোর?আয় না আমার পানে
গুনগুনিয়ে কি গান শোনাও পুষ্প রাণীর কানে?
দুলদুলিয়ে যাও মিশে যাও শর্ষে ফুলের দেশে,
নাও না আমায় সঙ্গি করে একটু ভালোবেসে।
কোথায় তুমি পাওগো এমন হাজার রঙ্গের বন্যা?
কোন দেশের রাজ কুমারী কোন সে রাণীর কন্যা?

ভরদুপুরে ছুটে বেড়াও রোদকে ভালোবেসে,
বৃষ্টি এলে কোথায় হারাও লুকোচুরির বেশে?
জল কি তোমার খারাপ লাগে? শুষ্ক কেন আঁখি?
আমরা দেখ এক নদী জল বক্ষে পুরে রাখি।
খলখলিয়ে ফুলের মত হাসতে পার তুমি,
নাচতে পার ফুল পাঁপিয়ার রাঙ্গিয়ে হৃদয় ভূমি।
তোমার মত হয় না কেন আমার জীবনখানি?
দুঃখ গুলো ভাসিয়ে হাওয়ায় দাও না সুখের বাণী।

রচনা: ২৪/০২/১৮
সন্ধ্যা : ৭.০০

৩. বুড়িগঙ্গা

বলছে কেঁদে বুড়িগঙ্গা, বাঁচতে আমায় দাও
জীবন আমার হারিয়ে গেছে, একটু দেখে যাও,
শরীর জুড়ে তোমাদের এই অনাদরের খেলা
জন্ম থেকে যাচ্ছি সয়ে করুণ অবহেলা!
তোমার সুখের বসত হচ্ছে আমার দেহ জুড়ে
কি সুখ পাও দিবারাত্রী আমার বুকটা খুঁড়ে?
জীবননাশী বিষের বায়ু দিচ্ছো আমার বুকে
যাও দেখে যাও বন্ধু আমি মরছি ধুঁকে ধুঁকে।

এইতো সে দিন আমার বুকে বইতো সুখের ভেলা
উর্মিমালার প্রাণোচ্ছ্বাসে কাটতো সারা বেলা।
নাও ভাসানো মাঝির মনে জাগতো প্রাণের সুর
ভাটির টানে পরান মাঝি ছুটতো বহুদূর।
এখন আমার শরীর জুড়ে ব্যবচ্ছেদের জ্বালা
হিংস্র শকুন ঠুকরে খাচ্ছে সকালসন্ধ্যা বেলা।

রচনাকাল: ২৫/০২/১৮
বিকাল: ৫.০০

৪. ফাগুন এসেছে দ্বারে

ভোর হতেই বাজে প্রাণে ফাগুনের ধ্বনি
চপল-চপলা সাজে ঐ তরুণ-তরুণী
ফুলেদের বুকে দেখি মূহুর্মূহু ঘ্রাণ
বাতাসে মিশেছে যার সুখ অফুরাণ।
হলুদের বেশাতি মাখা সরিষার ক্ষেতে
শীতের বিদায়ে আজি বসন্ত মাতে।
কোকিলের গানে ভাসে ফাগুনের রেশ
ফুলে ফুলে ভরে গেছে কাননের দেশ।

হুলুদে মোড়ানো দেহে ললনার মুখ
গুনগুনিয়ে গায় গান শত উৎসুক।
প্রকৃতি জুড়ে আজ বসন্তের মায়া
ওলিরা ফুলেতে জড়ায় আপন কায়া।
বসন্ত বাতাসে হারায় সুবাসিত মন
দুঃখ ভুলিয়ে দিতে এলো যে ফাগুন।

রচনাকাল: ১৩/০২/১৮

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com