রক্ত পরিষ্কারক খাবার

সোমবার, ০৩ জুন ২০১৯ | ৩:৫৪ পূর্বাহ্ণ | 1898 বার

রক্ত পরিষ্কারক খাবার

শরীরের সুস্থতা অনেকাংশে নির্ভর করে রক্তের বিশুদ্ধতার ওপর। রক্ত বিভিন্ন কারণে দূষিত হতে পারে। আর রক্ত দূষিত হলে কিছু উপসর্গ দেখা দেয়। যেমন অতিরিক্ত ব্রণ হওয়া, সোরিয়াসিস বা ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা হয় রক্ত পরিষ্কার না থাকলে। শুধু ত্বকের বেলাতেই নয়। রক্ত পরিষ্কার না থাকলে শরীরের বাকি অংশেও এর প্রভাব পড়তে শুরু করে। এমন কিছু খাবার রয়েছে, যা নিয়মিত খেলে রক্ত পরিষ্কার থাকবে। জেনে নিন এখানে—

হলুদ

webnewsdesign.com

হলুদের মধ্যে কারকিউমিন নামে এক ধরনের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট রয়েছে, যা রক্তকে বিশুদ্ধ করার পাশাপাশি একাধিক রোগের প্রকোপ কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তাই তো প্রতিদিন একটুখানি হলুদ খাওয়া যায়, তাহলে কিডনি এবং হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটে, ফলে শরীর থেকে টক্সিন বেরিয়ে যেতে পারে।

বিটরুট

এতে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট প্রপাটিজ, যা শরীরকে নানা ক্ষতিকর উপাদানের হাত থেকে রক্ষা করে। শুধু তা-ই নয়, লিভারের কর্মক্ষমতা বাড়াতেও বিটরুট ভীষণ কার্যকর।

গাজর

গাজরে রয়েছে বিপুল পরিমাণে ভিটামিন- এ, বি, সি, কে এবং পটাশিয়াম। এ সবক’টি উপাদান শরীর থেকে টক্সিন বের করে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। রক্ত ময়লা হয়ে যাওয়ার কারণে সোরিয়াসিসসহ ত্বকের নানা রোগ হয়। গাজরে আরো রয়েছে এক প্রকার ক্লিনজিং এজেন্ট, যা রক্ত পরিষ্কার করে। নিয়মিত গাজর খেলে রক্ত পরিষ্কার থাকে।

ব্রোকলি

এতে প্রচুর মাত্রায় ডিটক্স এজেন্ট রয়েছে। তাই তো প্রতিদিন এ সবজিটি খেলে রক্ত দূষিত হওয়ার কোনো আশঙ্কাই থাকে না।

লেবু

শরীরে ক্ষতিকর টক্সিনের মাত্রা বৃদ্ধি পেলে রক্ত দূষিত হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকবে। লেবু শরীর থেকে এ দূষিত উপাদান বের করে দেয়। তাছাড়া লেবুর মধ্যে এমন কিছু উপাদান রয়েছে, যা শরীরে উপস্থিত বিশেষ কিছু এনজাইমের কর্মক্ষতা বৃদ্ধি করে। এ এনজাইমগুলো শরীরে উপস্থিত টক্সিনকে দ্রবণীয় উপাদানে রূপান্তর করে। ফলে সেগুলো শরীর থেকে অপসারিত হয়।

করলা

তেতো খাবার খেলে শরীর ভালো থাকে! এ কথাটি বাস্তবিকই সত্যি যে, করলা জাতীয় তেতো খাবার খেলে রক্ত পরিষ্কার হয়, ফলে নানা রোগের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে শরীর মুক্ত থাকে। প্রসঙ্গত, করলায় প্রচুর মাত্রায় ডিটক্সিফাইং এজেন্ট রয়েছে, যা রক্ত থেকে ক্ষতিকর উপাদানকে বের করে দেয়। ফলে সোরিয়াসিস ও ব্রণের মতো ত্বকের সমস্যা কমে যায়।

সূত্র: এনডিটিভি

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com