ফিরোজা মোনা’র “বেহায়া রাত”

বৃহস্পতিবার, ০২ আগস্ট ২০১৮ | ৯:১০ পূর্বাহ্ণ | 936 বার

ফিরোজা মোনা’র “বেহায়া রাত”

:::::::বেহায়া রাত:::::::
ফিরোজা মোনা

রাত্রি দ্বিপ্রহর জোনাকিরাও লুকিয়েছে
বারটা বছর কেটেছে এই অন্ধকার ঘরে
সিদুর কুমকুমে সাজানো দেহটাতে
নেই কোন প্রানের স্পন্দন।

এ ঘরে বিদ্যুতের আলোরা খেলা করেনা
মোমের আলোতে চেহারাটা অম্লান
দুবেলা আহার আর একবেলা ডায়েটে
শরীর মানিয়েছে বিলেতি মেমদের মত
বিউটিসিয়ান আসে রং বেরং এর কুমকুমে
সাজায় আর বলে তুমি সেই অবসরা
রুপের শেষ নেই তোমার।

মিনতি ডাক্তার আছে শরীর ঠিক আছে কিনা
চেক করতে আমি হাসি আর বলি শরীর এতো
সেদিন ই অন্যের হয়ে গেছে যেদিন এ জালে
বন্দি হয়েছি ওরা বেচেদিল আমায় লক্ষ টাকায়
তুমি যদি পার বাচাও আমায় শাখা আর সিদুরে
ঢেকে এখান থেকে মুক্ত কর।

হায়নার দল শরীর ছিড়ে খায় প্রতিদিন তাকিয়ে
থাকি যতি কোন সৎ মানুষের দেখা মেলে কেউ
যদি আপন করে কোন নাম ধরে ডেকে বলে তুমি
শুধু আমার আজ থেকে তুমি মুক্ত ছোটো আর
পালাও।

ঠিক তাই হল মিনতি দিদি আসলেন ক্যনভাসারের
রং তুলি দিয়ে আমার চেহারাটা ঢেকে দিলেন আর
হাত ধরে রাস্তায় এনে ছেড়ে দিয়ে বললেন দিপা
পালা পালিয়ে যা।

ছুটছি আর ছুটছি কোথায় যাবো জানিনা এক
ঝাপটা বৃস্টি এলে ধুয়ে গেল সব রং সোনালী
রোদে নিজের চেহারাটা দেখলাম অন্ধকার থেকে
এবার আলোয়।

হায়নার মত চোখগুলো তাকিয়ে রয়েছে আমি
নিরাশার আধারে ঢাকা হাত পেতে চলছে দিন মাস
শরীর খারাপ লাগে কেমন যেন অন্য বকম খারাপ
অচেতন হয়ে রাস্তায় পড়েছিলাম কেউ একজন
এনে রেখেছে হাসপাতালের বারান্দায়।

সাদা জামা পরা ডাক্তার বলছে কোথায় বাড়ি তোমার
বাড়িতে খবর দাও মা হতে চলেছো তুমি আমি বোবার
মত চেয়ে আছি কোন উত্তর দেইনি এখনো সেখানেই
পড়ে আছি কেউ নিতে আসে না আমায়।

অনাগত যে বেড়ে উঠছে আমার মাঝে কোথয় হবে
তার ঠাই কে হবে তার বাবা??

আমাদের মত হাজারো দিপার জীবন অনাদরে
ঢেকে আছে এ ভাবেই কোন দিন কি মুক্তি হবেনা
আমাদের??

********

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com