রমজানে মা-বোন-স্ত্রীদের পাশে আছি তো?

বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১ | ১০:৩২ অপরাহ্ণ | 138 বার

রমজানে মা-বোন-স্ত্রীদের পাশে আছি তো?

রাসূল সাঃ এবং সাহাবীরা রমজান মাস আসার অনেক আগে থেকেই রোজার জন্যে প্রস্তুতি নিতেন। স্পিরিচুয়ালি এবং ফিজিক্যালি।

 

আমাদের দেশে প্রস্তুতিটা অনেক ক্ষেত্রে হয়ে যায় কেবল ‘ইফতার’ কেন্দ্রিক। আর অনেক পরিবারেই এর বিশাল চাপটা গিয়ে পড়ে বাড়ির মা-বোন-স্ত্রীদের উপর। জুলুম হয় যারা আমাদের হেল্পিং হ্যান্ড হিসেবে কাজ করে তাদের উপর।

webnewsdesign.com

 

টেবিলে ইফতার আইটেম কম হওয়া, খাবার খেতে মজা না হওয়া – এসব সমালোচনার চাপে অনেক মেয়েকেই তটস্থ থাকতে হয়। ইবাদত করার সুযোগ কমে যায়।

 

সবাই রোজা রেখে টায়ার্ড বলে বিছানায় যখন গা এলিয়ে দিচ্ছে, তখন এই মানুষগুলোকেই দেখা যায় অন্যদের ফুট-ফরমায়েশ খাটতে হচ্ছে অথবা পরের বেলার খাবারের তোড়জোড় করতে হচ্ছে।

 

সেহেরীতে তাদেরকেই উঠে সব রেডি করে অন্যদেরকে ডাকতে হচ্ছে। কোন বেলার কোন কাজেই কেউ সাহায্যের হাত বাড়াচ্ছেনা। এর ফলে যেটা হয়, অনেক নারীই তার ইচ্ছে বা সামর্থ অনুযায়ী রমজান মাসের আমলগুলো করতে না পেরে ভেতরে ভেতরে মন খারাপ করেন। হয়তো কাউকে বলেনও না।

 

আমি এই কথাগুলো এজন্যে বলার প্রয়োজন মনে করলাম কারন রমজানে আমরা সবাই বিশাল বিশাল আমল করে ফেলার নিয়ত করি, সেগুলো করতে ও শুরু করি। কিন্তু প্রতিদিন ঘরে যে নিজের অজান্তে এক ধরনের জুলুমের মধ্যে মেয়েদেরকে ফেলে রাখছি এটাকে খেয়ালই করছিনা, অন্যায় বলে মনে করা তো দূরের কথা।

 

রাসূল সাঃ ইফতার সংক্রান্ত বহু হাদিসে স্রেফ খেজুরের কথা আছে! স্রেফ এটা থেকেই আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে।

 

বাড়ির সব সদস্য যদি এই ব্যাপারটা একটু বোঝার চেষ্টা করে তাহলে এই মানুষগুলোও একটু বাড়তি আমলের সুযোগ পাবে। (আর এই সুযোগ সৃষ্টি করে দেয়ার জন্যে নিশ্চয় আল্লাহ পুরষ্কৃত করবেন)

 

আপনাদের সবার রমজান মাস খুব খুব ভাল কাটুক। আমাকে এবং আমার পরিবারকে দুয়াতে রাখবেন যদি মনে থাকে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

Powered by Facebook Comments

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com